অনলাইনে আয় করবেন অথচ সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না !! আপনি আর্টিকেল / কন্টেন্ট লিখেও অনেক টাকা ইনকাম করতে পারেন ।।

amit89 diptoalo (2)
অন্যন্য দেশের সাথে তালে তাল মিলিয়ে আমরাও কোন অংশে থেমে নেই আজ। বিশেষ করে অনলাইনে ইনকাম তথা ফ্রিলাংসিং আউটসোরসিং এ আমার দেশও কোন অংশে পিছিয়ে নেই । এবার আসুন আপনাদের সাথে কিছু বিষয় শেয়ার করি । যদি কি না আপনি এ গ্লোবালাজেসন এর যুগে অনলাইন জগতে ইনকাম করার ইচ্ছে প্রেষণ করেন । তবেই পড়ুন বিস্তারিত…।। আমি আমার মত করে আপনাদের সাথে শেয়ার করার চেষ্টা করছি, ভুল মার্জনা করবেন ।
 

অনলাইনে ইনকামের হাজার হাজার মাধ্যম আছে, হ্যা হাজারও মাধ্যম। খুঁজে নিন আপনার পছন্দের কাজটি। আপনি এখানে full time কাজ করতে পারেন, চাইলে অন্য কাজের পাশাপাশি part time ও করতে পারেন। এখন কথা হচ্ছে আপনি কি করতে চান ? কি নিয়ে কাজ করবেন এবং ক্যানো ? আপনি যে কাজটা করবেন বলে ভাবছেন সেটা কি সত্যি আপনার পছন্দ আর ভালোলাগার কাজ…? না কি অনেকে করছে তাই আপনিও চাচ্ছেন। প্রশ্নগুলোর উত্তর আপনার ডাইরিতেই লিখে ফেলুন। না না এ ব্যাপারে তাড়াহুড়র কিছু নেই ! আপনি বরং জেনে শুনে অনলাইন ঘেটে ভেবে চিন্তেই সিদ্ধান্ত নিন। এটা গুরুত্বপূর্ণ। কোন কাজে বেশি টাকা ইনকাম করা যায়, আর কোনটাতে কম আসে এ রকম না ভেবে কোন কাজটা আপনার ভালো লাগে সেটাকেই priority দিন। আপনি শুধু আপনার ভালো লাগার কাজগুলোই করবেন।you-can-earn-a-lot-of-money-with-write-an-article-when-make-a-decision

সিদ্ধান্ত নিন, “Everything is happen when you make a decision” হ্যা সঠিক সিদ্ধান্তটা সঠিক সময়েই আপনাকেই নিতে হবে। ভেবে দেখুন সব ধরনের সুযোগ সুবিধে আপনার আশপাশেই আছে। পজেটিভ ভাবুন। আপনি যদি ইচ্ছে প্রেষণ করেন সিদ্ধান্ত নেন তবে আপনিও পারবেন নিশ্চিত।

কি কাজ করতে আপনার ভালো লাগে, সখ কে প্রাধান্য দিয়ে, কিউরিসিটি কি নিয়ে, কোন কাজটা আপনি ভালো বুঝেন বা করতে পারবেন, আপনার স্বপ্নপূরণে সঠিক সিদ্ধান্তটা, নিজের কাছথেকেই জেনে নিন বিস্তারিত।

তবে একটা কথা মনে রাখবেন, আপনাকে আপনার পছন্দের কাজটাই ভালো করে শিখতে হবে, জানার আগ্রহ থাকতে হবে তবেই আপনার গ্রহণযোগ্যতা বাড়বে আর ভালো ইনকাম আসবে। সর্ট খাট সংক্ষিপ্ত কোন পথ নেই এখানে বরং আছে বিশাল প্রতিযোগিতা । চুপসে যাননি তো প্রতিযোগিতার কথা শুনে । হওয়াটাও অস্বাভাবিক না । দুর্বল চিত্তের প্রাণীদের এমনটা হতেই পারে। আপনি নিশ্চয় এ রকম নন, সিদ্ধান্ত নিলে তা বাস্তবায়নে সদা তৎপর থাকেন। কিন্তু এ রকম অনেক আছে যারা মাঝ পথে এসে চুপসে যায়, নিজের কাছে হেরে যায় আর নিজেকে ব্যর্থ ভাবতে শুরু করে। কাজটা মনে হয় অনেক কঠিন, আমার অনেক সময় লাগবে শিখতে, অনেক ধৈর্য দরকার, শেষ পর্যন্ত আই ইনকাম করতে পারব তো, যদি না পারি তাহলে তো সময়্টা নষ্ট আর টাকাটাও জলে যাবে এ রকম ভাবছেন। তাহলে ভাই আপনি ট্র্যাডিশনাল কিছু চিন্তা করেন, অনলাইনে ইনকাম করার মত স্মার্ট জব আপনার জন্য না। প্লিজ ভেবেও সময় নষ্ট করবেন না। আপনি ভিতু, আপনি ব্যর্থতাকে এড়িয়ে যাচ্ছেন।
লাইন দুটো মনে আছে- কে বলেছিল ভুলেগেছি,
ব্যর্থতা কোন প্রতিবন্ধক হতে পারে না, যদি না তুমি তাকে এড়িয়ে যাও বা ব্যর্থতা থেকে শিখতে না চাও
আরে ভাই আপনি ইনকাম করবেন আপনাকে তো কাজ করতে হবে তাই না। আর কাজ করতে হলে আপনাকে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিতে হবে, কাজগুলো ভালো করে শিখতে হবে এটাই জরুরি। খুব সহজভাবে, সংক্ষিপ্ত ভালো কিছু হয় না। আপনি কাজ শিখবেন যার কারনেই আপনি গ্লোবালই কাজ করার সুযোগ পাবেন। নিজেকে সৃজনশীলতা বিকাশের অপার সম্ভাবনার দ্বার উন্মুক্ত হবে। আর অনেক টাকা ইনকাম করবেন। অতএব আপনি যে কাজ ই শিখেন না কেন, আপনাকে সে কাজে দক্ষতার পরিচয় দিতে হবে, তবেই আপনি আপনার উদ্দ্যেশে সফল হবেন।
একটু ভেবে দেখুন তো,

আপনি ডিজাইন নিয়ে কাজ করছেন (গ্রাফিক্স ডিজাইন) অথবা (ওয়েব ডিজাইন) আপনার প্রডাক্ট গুলো উন্মক্ত কিছু মার্কেট প্লেস থেকে যে কেউ যখন তখন আপনার নিদ্ধারিত দাম দিয়ে কিনে নিতে পারে যত খুসি ততবার, হয়তো আপনি তখন ঘুমিয়ে আছেন । ব্যপারটা কেমন হবে আপনার কাছে ? অনেক মজার আমার কাছে । আপনারও অনেক ভালো লাগবে নিশ্চিত । অন কাইন্ড অফ রইয়েলিটি । আপনার ৫ কিংবা ৫০ ডালারের একটা ভালো প্রোডাক্ট ৫০০ – ৫০০০ বারও বিক্রি হতে পারে। এটা কোন ফ্যান্টাসি নয় রিয়েলিটি। আপনিও ইচ্ছে প্রেষণ করলে এর আওতায় আসতে পারেন।

Write an Article and make money with online

আপনি কন্টেন্ট লিখেও ভালো ইনকাম করতে পারেন। লেখা লেখির অভ্যাস আছে আপনার ? না লেখার অভ্যাস থাকলে সময় নিয়ে অবশ্যই চেষ্টা করে দেখবেন আপনার লেখা কেমন হয়। লেখা লেখি একটি সৃজনশীল কাজ। অনেক সময় আমরা নিজেরাও জানি না আমাদের মাঝে কত বড় প্রতিভা লুকিয়ে আছে। হয়তো পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতির চাপে আপনি কখনো লেখালেখির কথা চিন্তাও করেন নি। অবসর সময়টাকে কাজে লাগান, আপনার ভালো লাগা কোন বিষয়ে লিখুন আপনার মত করে।

একটা ভালো লেখা থেকেও আপনি টাকা ইনকাম করতে পারেন আর যদি ইংলিশ হয় তা হলে তো আরো বেশি টাকা। বাংলা অনেক সাইট আছে যে খানে আপনি আর্টিকেল লিখে টাকা ইনকাম করতে পারেন। আমাদের এ সাইটেও রয়েছে আর্টিকেল লিখে প্রতিদিন, সাপ্তাহিক, মাসিক পেমেন্ট ব্যবস্থা। প্রতিটি আর্টিকেল এর জন্য আপনি পাচ্ছেন ৫০ – ১০০ টাকা ইনকাম করার সুযোগ। শুধু তাই না, আছে বিশেষ অফার। আপনি শুরুটা এখানেই করতে পারেন, লেখার বিষয়বস্তু আপনি নিজেই নিদ্ধারন করতে পারেন। তবে কপিরাইট করবেন না, তাতে শুধু সময়ই নষ্ট হবে আপনার। কারো লেখা সরাসরি কপি করে নিজের নামে প্রকাশ করার চেষ্টা করলে আপনি সব সাইট থেকেই বহিষ্কার হবেন এখানেও ব্যতিক্রম নয়। আপনার লেখার মান ভালো হলে, কিংবা আপনি আগে অন্য কোন সাইটে কন্টেন্ট লিখে থাকলে অর্থাৎ আপনার লেখালেখির অভিজ্ঞতা থাকলে আপনার সন্মানিও ভালো পাবেন। শুধু টাকা পয়সা নিয়েই কথা বলছি ! এ রকম অনেকেই আছে যারা টাকার জন্য লিখে না। নিজের জ্ঞান, অভিজ্ঞতা অন্যের সাথে শেয়ার করা, সৃজনশীলতা বিকাশ, নিজের পরিচিতি আর পাঠকের ভালোবাসার জন্য ও লিখে অনেক লেখক।
আপনি আপনার গুরুত্বপূর্ণ সময় এর মাঝে সময় নিয়ে লিখেছেন তার হয়তো যথার্থ পারিশ্রমিক আমরা আপনাকে দিতে পারব না। তবে আপনার প্রতি কৃতজ্ঞতার ত্রুটি থাকবে না। অনেক পপুলার সাইট রেখে আপনি এ আলোয় লেখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আপনাকে ধন্যবাদ।
 
এ বিষয়টা মাথায় রাখবেন……
যেকোন কন্টেন্ট পড়ার সময় চোখের প্রশান্তি গুরুত্বপূর্ণ। চোখ যদি আপনার লেখা দেখে বোরিং হয় তাহলে মস্তিষ্ক না পড়ার সিদ্ধান্ত নিবে। আমরা তো সবাই সুন্দরের পূজারী, আর্টিকেল পড়ার ক্ষেত্রেও চোখ ব্যতিক্রম খুঁজবে না। সেজন্য লেখার সময় কয়েকটি বিষয় আপনাকে মাথায় রাখতে হবে। পয়েন্ট দিয়ে লিখলে পাঠক পড়তে সুবিধা বোধ করে। চোখ যেহেতু সুন্দর জিনিস খুঁজে তাই লেখার মধ্যে আকর্ষণীয় ছবি ব্যবহার করলে পাঠকের ব্রেনে  পড়ার আগ্রহ সৃষ্টি হয়। এটা গুরুত্বপূর্ণ। আর আকর্ষণীয় শিরোনাম তো থাকছেই, প্রথম শিরোনাম দেখেই না সে বিস্তারিত পড়বে। আকর্ষণীয় শিরোনাম হলে আপনার কন্টেন্ট বেশি ভিউ হবে এটাই স্বাভাবিক।
 
সিদ্ধান্ত নিন আর কাজ শুরু করুন। আপনার আশপাশের কেউই বোসে নেই।

এই সংক্রান্ত আরও খবর...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *