সুখি মানুষেরা যে কাজগুলো একদমই করেন না ।।

that-does-not-work-at-all-happy-people

  • মানুষের কথায় কান দেয়া অযথা সময় নষ্ট

মানুষ আপনার সম্পর্কে কথা বলেই যাবে। আপনি সোজা পথে হাঁটলেও কথা শোনাবে আবার বাকা পথে হাঁটলেও কথা শোনাবে। তাই মানুষের সকল কথায় কান দিয়ে নিজের সুখ নষ্ট করার কাজটি সুখী মানুষরা একেবারেই করেন না।

  • নিজের সুখের জন্য অন্য কোন বেক্তি বা বস্তুর উপর নির্ভরশীল হওয়া – একদমই না !!

কারন সুখ পুরটাই মানুসিক একটি ব্যাপার। যা আত্মতৃপ্তি থেকে আসে। নিজের সুখের জন্য অন্য কোন বেক্তি বা বস্তুর উপর নির্ভরশীল হলে অর্থাৎ আপনি যদি প্রোএক্টিভ না হন- অন্যের দ্বারা প্রভাবিত হন, ইতিবাচক ভাবতে না পারেন তাহলে আপনি কখনোই আত্মতৃপ্তি অনুভব করবেন না। সে কারনেই সুখী মানুষ নিজের সুখের জন্য অন্যের উপর নির্ভরশীল থাকেন না।

  • অতীত ভেবে সময় পার !

আজ যা বর্তমান, আগামী কাল তা অতীত এমনটাই তো হবে স্বাভাবিক। সেই অতীতকে ধরে করে বর্তমানে বসে অতীতের সুখ কিংবা দুঃখের সময় নিয়ে অযথা ভাবনা চিন্তা কিংবা নিজেকে দোষারোপ করা এটা নিতান্তই বোকামি ছাড়া আর হবে কি। আর এই বোকামো কাজটা সুখী মানুষরা একেবারেই করেন না। অতীত শুধু শুধ্রে যাওয়ার কথা বলবে, আপনি যে ভুলটা করেছিলেন তার থেকে শিক্ষা নেয়ার জন্য।

  • সাধারণত অন্যের খুঁত ধরার মানুষগুলো প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে অন্যের দ্বারা খুব বেশি প্রভাবিত হয়, যাদের মধ্যে এ খারাপ দিকটা আছে তারা প্রকৃতপক্ষে সুখী না ।।

যদি কারো চোখে, অন্য মানুষদের খুঁতটা আগে ধরা পরে  তাহলে বুঝে নিন সে সুখী নন। কারন তখন আপনার মন নেতিবাচক  জিনিসটিই খুঁজবে। যিনি অন্যের নেতিবাচক দিকগুলো নিয়ে আগে ভাববেন সে নিজের সুখকে দূরে ঠেলে দিয়ে থাকেন। তাই সুখী মানুষরা অন্যের খুঁত ধরতে যাওয়ার মত অযথা সময় ব্যয় করে না।

  • মুখে বলবেন এক, আর কাজে অন্য এক !!

মুখে এক আর ভেতবে আরেক এই ধরনের মানুষগুলো অনেক ভয়ংকর হয়, সুখী মানুষ তারা একেবারেই পালন করে না। কারন যারা এই ধরনের আচরণ করেন তারা কখনোই ভালো থাকতে পারেন না।নিজের দ্বিমুখী আচরণের কারনেই নিজেরাই নিজের জালে আটকে মরে।

  • নিজেকে অন্যের সাথে তুলনা কেন !

নিজেকে নিয়ে যে সুখী নয় সে কখনোই কোন কিছুতে সুখ খুঁজে পাবেন না। নিজেকে সন্মান করতে না জানলে কারো কাছেই সন্মান পাওয়া যায় না। নিজেকে অন্যের সাথে তুলনা করতে যাওয়ার মতো বোকামি সুখী মানুষরা একেবারেই করেন না।

  • ব্যর্থতাকে ভয় পেলে চলবে …?

একটা প্রবাদ মনে পরল, “ব্যর্থতা কখন প্রতিবন্ধক হতে পারে না, যদি না তুমি তাকে এড়িয়ে যাও বা ব্যর্থতা থেকে শিখতে না চাও” ব্যর্থতাকে ভয় পেলে জীবনে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। সফল হতে হলে বিফলতাকে স্বীকার করে নিয়েই এগুতে হবে। ব্যর্থতাকে ভয় করে জীবনে চলতে থাকলে সুখী হওয়া সম্ভব নয়। সে কারনেই ব্যর্থতাকে ভয় করে না  সুখী মানুষরা।

  • ভবিষ্যৎ নিয়ে অতিরিক্ত চিন্তা …?

ভবিষ্যতে আমরা কেউই জানি না। ভাগ্যের কিছু বিষয় আমরা নিজেরা গড়ে নিতে পারি, এ বাদে ভবিষ্যতে কি হবে তা বলা যায় না একেবারেই। তাই অযথা চিন্তা করে বর্তমানের সুখ নষ্ট করার কোন অর্থ হয় না।তাই যতোটুকু প্রয়োজন তার চেয়ে বেশি চিন্তা করেন না সুখী মানুষেরা।

আপনার সাতটি কথায় হতাশাগ্রস্ত মানুষটি ফিরে পারে আত্মবিশ্বাস ।।

সত্যি কি আপনি অন্যের দ্বারা প্রভাবিত ? স্থির হয়ে নিজেকেই প্রশ্ন করুন ।।

নিজের চেহারা নিয়ে হীনমন্যতা একদম না

 

এই সংক্রান্ত আরও খবর...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *