পূজোর আনন্দ সাথে খাবারেরও…

শরতেasit-karmakrর আকাশে সাদা মেঘের ভেলার আনাগোনা জানিয়ে দেয় দুর্গা পুজোর আগমন । বাঙ্গালীর সার্বজনীন কয়টি উৎসবের মধ্যে দুর্গাপুজো অন্যতম । ষষ্ঠী থেকে বিজয়া দশমী এই পাঁচদিনের আনন্দের যেমন সীমা থাকে না তেমনি থাকে না খাবারের কোন বিধি নিষেধ… আমিষ/ নিরামিষ সব খাবারই বাঙালী খুব আনন্দের সাথেই গ্রহণ করে থাকে … আর এরই ধারাবাহিকতায় আমাদের এবার দুর্গাপুজোর কিছু খাবারের রেসিপি দিয়েছেন অসিত কর্মকার সুজন।

সরষে মটন

উপকরনঃ

asit-karmakar1

সরষে মটন

খাসির মাংস -১/২কেজি ছোট ছোট করে টুকরো করে আগে স্বেদ্ধ করে রাখা ,নারকেল বাটা ২ টেবিল চামচ , সরষে বাটা আধা কাপ , পিয়াজ বাটা -২চা চামচ আদা বাটা -১ চা চামচ রসুন বাটা -২ টেবিল চামচ, কাচা মরিচ বাটা -১ টেবিল চামচ , জিরা বাটা -১ চা চামচ , পোস্ত বাটা ১ চাচামচ, কাজুবাদাম বাটা -১চা চাম্‌ কিস মিস বাটা – ১ চাচামচ ,এলাচ বাটা – ১ চাচাম্‌ টক দই – হাফ কাপ, হলুদ গুড়ো-১ চাচামচ,মরিচ গুড়ো-১চা চামচ আস্ত দারচিনি,লবঙ্গ, তেজ পাতা, এলাচ,জায়ফল,- ১টি করে তেল- ১ কাপ , চিনি ও লবণ স্বাদমতো ।

প্রনালী:

মাংস কে টক দই সামান্য রসুনবাটা সামান্য লবন দিইয়ে মেখে নিন। এবার প্যানে তেল দিয়ে তাতে আস্ত মসলা ফোঁড়ন দিয়ে সব বাটা মসলা ও গুরা মসলা দি্যে কষাতে হবে । তেল উপরে উঠে আসলে সিদ্ধ করে রাখা মাংস দিয়ে কশিয়ে নারকেল দুধ দিয়ে ঢেকে রান্না করুন কিছু সময়। রান্না হলে পোলাও বা খিচুড়ির সাথে পরিবেশন করুন।

পনির ইলিশ

উপকরণঃ

asit-karmakar2

পনির ইলিশ

ইলিশ মাছ চার টুকরো ,আলু ও পনির ছোট করে কাটা ,আদা ও জিরা বাটা ১ চা চামচ করে , গরমমশলা গুরা ১/২ চা চামচ , মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, কালোজিরা ১ চা চামচ , চিনি ১ চা চামচ ,লবণ স্বাদমতো, তেল ১ কাপ ।

প্রণালী:

প্রথমে সাদা তেলে আলু আর পনির ভেজে নিয়ে তুলে রাখুন ।এরপর তেল দিয়ে আস্ত এলাচ ,দারচিনি , তেজপাতা ও জিরে দিয়ে ফোঁড়ণ দিয়ে অল্প নেড়ে নিন ।তারপর একটু জল দিয়ে তার মধ্যে লবণ, হলুদ, জিরেগুড়ো, মরিচ গুঁড়া , আদা ও জিরা বাটা, আর অল্প চিনি দিয়ে দিন । তারপর আলু ও জল দিয়ে কষিয়ে ইলিশ মাছের টুকরা ও পনির দিয়ে দিন। মাছ স্বেদ্ধ হয়ে হয়ে এলে নামানোর আগে ওপরে একটু গরমমশলা গুরো ছড়িয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন ।

গ্রীন চিকেন

উপকরনঃ

asit-karmakr3

গ্রীন চিকেন

মুরগী – আট টুকরা পিয়াজ বাটা – এক টেবিল চামচ আদা বাটা – এক চা চামচ রসুন বটা -আধা চা চামচ ধনে গুরা -আধা চা চামচ জিরা গুরা -আধা চা চামচ , ধনে পাতা বাটা – আধা কাপ , পুদিনা পাতা বাটা-আধা কাপ, পুইপাতা বাটা আধা কাপ , টক দই -এক টেবিল চামচ গরম মশলা গুরা – সামান্য লবন – পরিমান মতো তেল – আধা কাপ কাচা মরিচ বাটা -সাত আট টা

প্রনালী :

মুরগী ধুয়ে টক দই দিয়ে মাখিয়ে রাখতে হবে দশ মিনিট। চুলায় প্যান দিয়ে তাতে তেল গরম দিতে হবে। তেল গরম হয়ে গেলে তাতে পিয়াজ বাটা দিয়ে একটু কশাতে হবে। এরপর এতে আদা , রসুন, ধনে , জিরা গুরা দিতে হবে। মশলা ভালো মতো কশানো হলে এতে মুরগীটা দিতে হবে। মুরগী কশানো হলে এতে ধনে , পুই আর পুদিনা পাতা বাটা দিয়ে কশায়ে একটু ঢেকে দিতে হবে। মুরগী সিদ্ধ হলে হলে এতে গরম মশলা গুরা ছিটিয়ে চুলা বন্ধ করে বাটিতে ঢালতে হবে।

নারকেলের বরফি

উপকরণ:

কোড়ানো নারকেল, চিনি ও গরম মশলা ।

নারকেলের বরফি

নারকেলের বরফি

প্রণালী:

প্রথমে কোড়ানো নারকেল ভালোকরে বেটে মিহি করে নিন। এবার একটি গরম পাত্রে নারকেল ও চিনি দিন। ভালো করে নাড়ুন। যখন নারকেল ও চিনির পানি একটু শুকিয়ে আসবে তখন চুলার আঁচ কমিয়ে দিয়ে নাড়তে থাকুন। মনে রাখবেন কোনভাবে যেন নারকেল পুড়ে না যায় বা পাত্রে লেগে না যায়।

কিছুক্ষণ নাড়ার পর গরম মশলা দিন। নারকেল ও চিনির মিশ্রন যখন খুব ভালোভাবে মাখা মাখা হয়ে যাবে তখন চুলা থেকে নামিয়ে একটি পাত্রে তা পাতলা করে ছড়িয়ে দিনএবং উপরের অংশ সমান করে দিন। একটু ঠান্ডা হলে বরফির আকারে ছুরি দিয়ে কেটে নিন।তৈরী হয়ে গেলো মজার নারকেলের বরফি।

আতপ চালের পায়েস

উপকরণঃ

asit-karmakr5

আতপ চালের পায়েস

আতপ চাল ১ কাপ , দুধ ১ লিটার , পেস্তা + আমন্ড পেস্ট ১ কাপ , চিনি স্বাদ মতো মাওয়া ১/২ কাপ , দারুচিনি + এলাচ ২ টি করে , সাজানোর জন্যে কয়েকটি বাদাম কুচি ।

প্রণালী:

চাল ১০ মিনিট জলে ভিজিয়ে রেখে ভালোকরে ধুয়ে জল ঝড়িয়ে রাখতে হবে । এবার একটি পাত্রে দুধ দিতে হবে । দুধ ফুটে উঠলে চিনি ও চাল দিয়ে ভালো করে নাড়তে হবে । ১০/১৫ মিনিট সময় পর কিশমিশ ও চেরি বাদে বাকী সব উপকরণ আস্তে আস্তে মেশাতে ও নাড়তে হবে । ভালো ভাবে স্বেদ্ধ হয়ে আসলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে একটি পাত্রে বাদাম কুচি সাজিয়ে পরিবেশন করুন ।

ঝাল সয়া নাগেটস

উপকরণঃ

আলু ছোট করে কাটা ,আদা বাটা ২ চা চামচ, গরমমশলা গুরা ১/২ চা চামচ , মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ,আস্ত এলাচ ১ টি, দারচিনি ১ টুকরা, তেজপাতা ২টি, জিরা ১ চা চামচ , চিনি ১ চা চামচ ,লবণ স্বাদমতো, কাজু ও পেস্তা বাদাম বাটা ২ টেবিল চামচ ,টক দই ১/২ কাপ তেল/ঘি ১ কাপ।

asit-karmakr6

ঝাল সয়া নাগেটস

যেভাবে তৈরি করবেনঃ

প্রথমে গরম পানিতে সয়া নাগেটস গুলো একটু ভালোভাবে ভাপিয়ে নিতে হবে ।এরপর পানি থেকে তুলে নিয়ে ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে নিতে হবে । একটু নরম নরম হবে । সয়া নাগেটস গুলো পানি চিপে নিতে হবে আস্তে আস্তে ।এরপর সাদা তেলে আলু ভেজে নিয়ে তুলে রাখুন ।এরপর তেল / ঘি দিয়ে আস্ত এলাচ ,দারচিনি , তেজপাতা ও জিরে দিয়ে ফোঁড়ণ দিয়ে অল্প নেড়ে নিন ।তারপর একটু জল দিয়ে তার মধ্যে লবণ , হলুদ, জিরেগুড়ো, মরিচ গুঁড়া , আদাবাটা, আর অল্প চিনি দিয়ে দিন ।তারপর আলু ও সয়া নাগেটস গুলোর সাথে কাজু ও পেস্তা বাদাম বাটা দিয়ে পানি দিয়ে চাপা দিয়ে দিন। সেদ্ধ হয়ে গেলে আগুন নিভিয়ে দিন । তরকারি‌ একটু মাখা মাখা হবে। নামানোর আগে ওপরে একটু ঘি আর গরমমশলা ছড়িয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন ।

এই সংক্রান্ত আরও খবর...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *